Common Specialities
{{speciality.keyWord}}
Common Issues
{{issue.keyWord}}
Common Treatments
{{treatment.keyWord}}
Dr. Subrata Gorai  - Homeopath, Asansol

Dr. Subrata Gorai

87 (559 ratings)
BHMS

Homeopath, Asansol

11 Years Experience  ·  300 - 500 at clinic  ·  ₹200 online
Dr. Subrata Gorai 87% (559 ratings) BHMS Homeopath, Asansol
11 Years Experience  ·  300 - 500 at clinic  ·  ₹200 online
Submit Feedback
Report Issue
Get Help
Feed
Services
Reviews

Personal Statement

I want all my patients to be informed and knowledgeable about their health care, from treatment plans and services, to insurance coverage....more
I want all my patients to be informed and knowledgeable about their health care, from treatment plans and services, to insurance coverage.
More about Dr. Subrata Gorai
Dr. Subrata Gorai is a popular Homeopath in Neamatpur, Asansol. He has over 11 years of experience as a Homeopath. He is a qualified BHMS . You can consult Dr. Subrata Gorai at Mhijam Clinic in Neamatpur, Asansol. Book an appointment online with Dr. Subrata Gorai and consult privately on Lybrate.com.

Lybrate.com has a number of highly qualified Homeopaths in India. You will find Homeopaths with more than 42 years of experience on Lybrate.com. Find the best Homeopaths online in Asansol. View the profile of medical specialists and their reviews from other patients to make an informed decision.

Info

Education
BHMS - Vardhman University West Bengal - 2007
Past Experience
Medical Officer at ILS Hospital
Ex RMO at BHMC&H
Ex Emergency Medical Officer at Shubham Hospital
...more
Medical Officer at Mihijam Clinic
Medical Officer at Clinical Research PDCTM OCRT
Languages spoken
English
Hindi
Professional Memberships
Council of Homoeopathic System of Medicines West Bengal

Location

Book Clinic Appointment with Dr. Subrata Gorai

Mhijam Clinic

Barakar Bus Stand, East Asansol, Entrance of Mini/Express Bus Depot, East Corner First House (Gorai House/Snake Bite Specialist) PO- Barakar, Distt - BurdwanAsansol Get Directions
  4.4  (559 ratings)
500 at clinic
...more

DR S G Clinic

DR SUBRATA GORAI C/O - Sukhamoy Gosami, Krishna Nagar, Nuttan Pally, Goswami House, Near To Chaatrra Sangha Club & Bijoy Kumar Chowmuni, PS Tripura WestAgartala Get Directions
  4.4  (559 ratings)
300 at clinic
...more
View All

Consult Online

Text Consult
Send multiple messages/attachments. Get first response within 6 hours.
7 days validity ₹200 online
Consult Now
Phone Consult
Schedule for your preferred date/time
15 minutes call duration ₹500 online
Consult Now
Video Consult
Schedule for your preferred date/time
20 minutes call duration ₹700 online
Consult Now

Services

View All Services

Submit Feedback

Submit a review for Dr. Subrata Gorai

Your feedback matters!
Write a Review

Patient Review Highlights

"Very helpful" 13 reviews "knowledgeable" 12 reviews "Thorough" 1 review "Well-reasoned" 3 reviews "Professional" 2 reviews "Prompt" 1 review "Saved my life" 1 review "Sensible" 2 reviews "Helped me impr..." 1 review "Caring" 3 reviews

Reviews

Popular
All Reviews
View More
View All Reviews

Feed

Hi I feel I am suffering from social anxiety disorder I find it difficult to make friends, I feel blank wen I try to make conversation with friends, get feeling like person with different world altogether I feel very low on self confidence and get negative feelings about my future each n every seconds of day except sleeping hours. Nowadays getting suicidal thoughts also.

BHMS
Homeopath, Asansol
Hi I feel I am suffering from social anxiety disorder I find it difficult to make friends, I feel blank wen I try to ...
My brother never thought negative before any decision to look back to your own family member what they want from you. A good son, good brother, good husband. You can contact with me with my online Lybrate clinic for time being. You just take one dose aurum metalicum cm one dose. You need proper attention fraindly enviourment atmosphere. So don't delay come my online clinic.
1 person found this helpful
Submit FeedbackFeedback

Homeopathy For Different Types Of Skin Allergies And Ailments!

BHMS
Homeopath, Asansol
Homeopathy For Different Types Of Skin Allergies And Ailments!

Does your skin appear red, flaky or dry with itching (mild to severe)? These are some of the common symptoms associated with skin allergies. The skin allergies, as indicative of the name, is an allergic reaction, often triggered by the immune system in response to microbial infections, foods (food allergens), medicines, or some chemicals present in makeups.

While there can be a myriad of skin allergies, the most common ones include-

  1. Psoriasis: It is an autoimmune condition in which the skin cells undergo rapid proliferation. The accelerated cell multiplication gives rise to a painful and itchy condition whereby formation of red patches or scaling of the skin cells (appears as silvery-white scales) take place. The skin areas affected by psoriasis include the scalp, knees, elbow. Psoriasis can also affect the soles of the feet, torso as well as the palms.
  2. Eczema: Eczema is a common dermatological problem often found to affect children and infants (can affect people of other age groups). Also known as Dermatitis (Atopic Dermatitis), the condition wreaks havoc with the affected skin area appearing dry, itchy, red. The affected area of the skin may also scale up or appear flaky.
  3. Acne: Many people are affected by acne problems. In the case of acne, there is an elevated sebum production (by the Sebaceous glands), which together with the dead skin blocks the pores of the skin. The clogged pores facilitate the growth of the bacteria (Propionibacterium acnes) responsible for the outbreak of acne.

Homeopathic Treatment for Skin Allergies and Dermatological Problems
Homeopathic treatment never fails to amaze us with its immense benefits and effectiveness in treating a plethora of dermatological problems. What is more, the use of herbs and natural products make the homoeopathic medicines safe without triggering any health complications and side effects. The skin problems may not trigger the same symptoms and discomfort in all individuals. The associated symptoms depend on a variety of factors including the underlying cause. The homoeopathic treatment extensively analyzes the case history of the affected individual (including their physical, mental and emotional health) and then recommends the medications and the necessary lifestyle alterations to benefit the affected person maximally.

Some of the Homeopathic medicines used include:

  1. Psorinum comes as a relief in individuals where eczema results in severe itching with thick and foul-smelling secretions from the affected skin area.
  2. Mezereum comes as a relief for people with Psoriasis affecting the scalp.
  3. Hepar Sulphur provides fruitful results in the case of acne that ends up in painful eruptions.

In addition to the Homeopathic medicines (DO NOT INDULGE IN SELF-MEDICATION),

  • Keep the skin well moisturized and hydrated. Sip water (~ 6-8 glasses of water) throughout the day.
  • Stress and anxiety can aggravate the skin problems further. Meditation and yoga go a long way to relax and refresh the physical as well as the mental health.
  • Make sure to sleep at least 6-8 hours daily.
  • Always keep the face clean and make sure to remove the makeup before retiring to bed.

In case you have a concern or query you can always consult an expert & get answers to your questions!

2 people found this helpful

I have big pimples on my face and feel very much depressed and low self esteem I do not no what to do.

BHMS
Homeopath, Asansol
I have big pimples on my face and feel very much depressed and low self esteem I do not no what to do.
Don't upset its parts of your life. Take kali brom 10m one dose. Come my on line clinic for complete treatment.
Submit FeedbackFeedback

In past days I was very nervous and didn't concentrate on study due to some family issues but whenever I go outside to home my mind always says I can do it anything but problem once start here when I am at home so please give me best suggestions to concentrate on study or work.

BHMS
Homeopath, Asansol
Your subconscious mind react according your surrounding family issue. So when you go home you fell something happend today and bad thing happened today in your mind. So you need proper counciling and medication. In our advance homepathy treatment you easly shoreted your Anxiety'depression. So don't dealy come my online for complete and permanently solution mind peace full in any situations.
Submit FeedbackFeedback

I am getting lots of pimple like bubbles on my chin and turning to pus and hurting. Help me to know the reason for it. And solution to stop them.

BHMS
Homeopath, Asansol
I am getting lots of pimple like bubbles on my chin and turning to pus and hurting. Help me to know the reason for it...
Yes its ACNE VULGARIS its need treatment so don't delay come my online clinic for complete solution. Time need 3 to 6 month.
Submit FeedbackFeedback

I have upper stomach pain from 4 hour. And its start after finish my dinner from 4-5 days. I can not understand why this pain start dinner time as compare morning to evening I am normal. But this time I have to much pain from last 4 hour. Help me what I do?

BHMS
Homeopath, Asansol
I have upper stomach pain from 4 hour. And its start after finish my dinner from 4-5 days. I can not understand why t...
Yes something happened mostly GASTRITIS PAIN need tratment you taken Colocynth 1m 2dose. And come my online clinic for complete solution.
Submit FeedbackFeedback

I having nightfalls five time a week. I am very depressed it's ok or I need to go to doctor that's why I am not gaining weight from 1 years.

BHMS
Homeopath, Asansol
I having nightfalls five time a week. I am very depressed it's ok or I need to go to doctor that's why I am not gaini...
Yes lybrate-user definitely problems is there you need treatment do further delyed come on line clinic today book appointment complete solutions defined. For time being ACID PHOS Q 20DROP THRICE DAILY. FOR 10 DAYS.
Submit FeedbackFeedback

Homeopathy For Complete Removal Of Gallbladder Stones!

BHMS
Homeopath, Asansol
Homeopathy For Complete Removal Of Gallbladder Stones!

Gallbladder stones are mainly characterized by the hardening of the digestive fluids that gets deposited in the gallbladder. The gallbladder stones formed may comprise of undissolved cholesterol with a yellowish appearance (Cholesterol Gallstones). The hardened digestive fluid (bile) may also contain an elevated amount of bilirubin with the stones appearing black or dark brown (Pigment Gallstones).

As is the case with most other types of stone formations (such as kidney stones), people with gallbladder stones often experience excruciating abdominal pain, restricting their movement. Some people also experience pain between the shoulder blades. Fever, nausea, and vomiting are also common in patients suffering from the condition.

Homeopathy for the removal of gallbladder stones effectively-
Homeopathy comes as a breath of fresh air for many people whose lives have been jeopardized by the gallbladder stones. Homeopathic treatment has a very positive approach to treating gallbladder stones. It evaluates all the possible factors (physical or mental condition) that can result in the stone formation. With a proper diagnosis and identification of the trigger, the treatment then uses natural medicines to treat not only the gallbladder stones but also the symptoms that come tagged along. As compared to the conventional approach (including surgeries), Homeopathic treatments are safe and noninvasive. Though time-consuming, homeopathic treatment goes the extra mile to provide permanent relief from the gallbladder stones.

Some of the Homeopathic medicines that provide noteworthy results in the case of gallbladder stones include

  1. Calcarea Carb works to deal with gallbladder stones in obese people with elan. Some of the associated symptoms taken care of by Calcarea Carb include extreme sensitivity to cold, sour vomiting, or increased sweating (especially of the head region) triggered by the gallbladder stones.
  2. Lycopodium is beneficial for people who complain of gallbladder stone induced gastric problems such as acid reflux, a feeling of fullness even after eating a small quantity of food, and increased gas formation.
  3. Chelidonium works wonders to alleviate the gallbladder stones associated with abdominal pain. There is also a pain in the shoulder blade (right side).

While the homeopathic medicines are helpful, the patient also needs to bring about positive changes in their lifestyle and dietary habits. These changes, recommended by most Homeopaths, acts as a catalyst elevating the overall effectiveness of the Homeopathic treatment in treating the gallbladder stones.

  1. Obesity is one of the underlying triggers for the formation of gallbladder stones. Thus, maintaining the body weight and getting rid of the extra fats are essential. Exercise and physical activities can produce fruitful results. However, refrain from strenuous exercise or strict dieting.
  2. Choose your diet wisely. While increased intake of cholesterol can worsen the condition of gallbladder stones. Limited consumption of Good Cholesterol or HDL (High-Density Lipoproteins) is indeed healthy for the body. Whole grains, olive oil, legumes, flax seeds, fibrous fruits, fish (such as Salmon, Mackerel, Tuna, Sardines), nuts, flax seeds, play an instrumental role in elevating the levels of HDL in the body. Opt for anti-inflammatory and high fiber foods such as fruit, legumes, nuts, seeds.
  3. It is also essential to keep the body hydrated.

In case you have a concern or query you can always consult an expert & get answers to your questions!

3070 people found this helpful

hypertension.

BHMS
Homeopath, Asansol
উচ্চ রক্তচাপ:
যখন কোন ব্যাক্তির রক্তের চাপ সব সময়েই স্বাভাবিকের চেয়ে ঊর্ধ্বে থাকে তখন তাকে হাইপারটেনশন (Hypertension) বা উচ্চ রক্তচাপ বলে। হাইপারটেনশনকে সাধারনভাবে
1.প্রাথমিক (আবশ্যিক) হাইপারটেনশন এবং
2.গৌণ হাইপারটেনশন এ দুই শ্রেণীতে ভাগ করা হয়।           
উচ্চ রক্তচাপ একটি নীরব ঘাতক। অনেকের ক্ষেত্রে এই রোগ খুব সহজে ধরা পড়ে না আবার ধরা পড়ার পর এর সঠিক চিকিৎসা গ্রহণ না করলে ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে না থাকলে তা অনেক রোগের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। পৃথিবীতে ২৫ বছরের উর্ধে জনসংখ্যার প্রায় শতকরা ৪০ ভাগ উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত। সারা বিশ্বে প্রতি বছর ১৭.৩ মিলিয়ন মানুষ উচ্চ রক্তচাপ অথবা উচ্চ রক্তচাপ সম্পর্কিত জটিলতায় মৃত্যু বরণ করেন।

সাধারনভাবে বলা হয়, যদি কোনও ব্যক্তির উভয় বাহুতে রক্তচাপ ১৪০/৯০ টর (টর চাপের একটি একক) অথবা এর উপরে থাকে, তাহলে সেটাকে উচ্চ রক্ত চাপ বলা যেতে পারে। আবার রক্তচাপ ১৩৯/৮৯ টর থেকে ১২০/৮০ টর হলে সেটাকে প্রিহাইপারটেনশন বলা হয়। প্রিহাইপারটেনশন কোন রোগ নয়, কিন্তু প্রিহাইপারটেনশন আছে এমন ব্যক্তির উচ্চড়ক্তচাপে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশী থাকে। আবার, ডায়াবেটিস অথবা কিডনী রোগীদের ক্ষেত্রে, ১৩০/৮০ টরের অধিক রক্তচাপ হলেই সাবধান হতে হবে এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে প্রয়োজনে চিকিৎসা শুরু করতে হবে।

উচ্চ রক্ত চাপের প্রকারভেদ

শ্রেণী

হৃদ-সংকোচন

চাপ

হৃদ-প্রসারণ

চাপ

কি করবেন?

mmHgkPammHg

kPa

সাধারণ

রক্তচাপ
বর্তমান লাইফস্টাইল অনুসরণ করুন অথবা সাস্থ্যকর লাইফস্টাইল গ্রহণ করুন।হাইপারটেনশন
যদি ১ মাসের মধ্যে ব্লাড প্রেসার স্বাভাবিক পর্যায়ে না আসে তবে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।হাইপারটেনশন

পর্যায়-২

বর্তমান লাইফস্টাইল অনুসরণ করুন অথবা সাস্থ্যকর লাইফস্টাইল গ্রহণ করুন। ব্লাড প্রেসার স্বাভাবিক পর্যায়ে না আসলে অতি দ্রুত ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে চিকিৎসা গ্রহণ করুন।

উচ্চ রক্তচাপের লক্ষণ:-

1.অস্বস্তি বোধ করানিয়মিত বা অতিরিক্ত মাথা ব্যথাঘাড়ে ব্যথাচোখে ঝাপসা দেখা

2.অতিরিক্ত কাজের চাপ
3.অতিরিক্ত মদ্যপানউচ্চমাত্রার
4.উচ্চমাত্রার লবণের ব্যবহারের কারনে প্রায় শতকরা ৬০ ভাগ রোগী এই রোগে আক্রান্ত হন।
5.উত্তরাধিকার সূত্রে উচ্চ রক্তচাপ একটি স্বাভাবিক ঘটনা।
6.সাধারণত শতকরা ১০ ভাগ পর্যন্ত মহিলা গর্ভধারণের কারণে উচ্চ রক্তচাপের স্বীকার হন।
7.বৃক্কের উচ্চড়ক্তচাপ সাধারণত বৃক্কজনিত অসুস্থতার কারণে ঘটে থাকে।

কিভাবে বুঝবেন আপনি হাইপারটেনশনে আক্রান্ত?
সাধারনভাবে স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে বেশী রক্তচাপ হলেই ধরে নেয়া হয় সে হাইপারটেনশনে আক্রান্ত। স্বাধারণত এক সপ্তাহের বিরতিতে কমপক্ষে তিনবার মাপতে হবে। সঠিক

চাপ নির্ণয়ের জন্য কয়েকটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে যেমন-
1. দুশ্চিন্তামুক্ত অবস্থায় মাপতে হবে,
2. কমপক্ষে পাঁচ মিনিট সময় বসা অবস্থায় থাকতে হবে, 3.রক্তচাপ মাপার কমপক্ষে আধা ঘন্টা আগে থেকে ধূমপান থেকে বিরত থাকতে হবে,
4.মাদক গ্রহণের কমপক্ষে একঘন্টা পরে মাপতে হবে।

উচ্চ রক্তচাপের চিকিৎসা বা নিয়ন্ত্রনের উপায়
সাধারনভাবে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের রক্তচাপের জন্য
1. চিকিৎসকেরা ওজন কমানো
2. নিয়মিত ব্যায়ামকেই চিকিৎসার প্রথম ধাপ হিসেবে বিবেচনা করেন। এই পদ্ধতিগুলি রক্তচাপ কমানোর জন্য অত্যন্ত ফলপ্রসু, কিন্তু এগুলো সবাই ঠিকমতো মেনে চলতে পারেন না। বেশিরভাগ রোগীর ক্ষেত্রেই, মাঝারী থেকে উচ্চ রক্তচাপে যারা ভূগছেন, তারা অনির্দিষ্টকালের জন্য ঔষধের ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েন।

উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত রোগীর রক্তচাপ কমাতে নিম্নমাত্রায় লবণ, ফল, শাক সব্জি, স্নেহ বিহীন দুগ্ধজাত খাদ্য ও তেল কম খাওয়া ইত্যাদি অনেকটা সাহায্য করে।

ধূমপান ছেড়ে দেয়া সরাসরি রক্তচাপ না কমালেও, উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত রোগীর জন্য এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, কারণ এর ফলে উচ্চ রক্তচাপের বেশকিছু উপসর্গ যেমন- স্ট্রোক অথবা হার্ট-এটাক নিয়ন্ত্রণে আসে। উচ্চরক্তচাপ মৃদু হলে সেটা সাধারণত খাদ্য নিয়ন্ত্রণ, ব্যায়াম এবং শারিরীক সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে নিয়ন্ত্রন করা যায়।

এছাড়াও, পরিবেশগত চাপ যেমন উঁচু মাত্রার শব্দ, অতিরিক্ত আলো বা ঘিঞ্চি পরিবেশ ইত্যাদি পরিহারউচ্চ রক্তচাপ:
যখন কোন ব্যাক্তির রক্তের চাপ সব সময়েই স্বাভাবিকের চেয়ে ঊর্ধ্বে থাকে তখন তাকে হাইপারটেনশন (Hypertension) বা উচ্চ রক্তচাপ বলে। হাইপারটেনশনকে সাধারনভাবে
1.প্রাথমিক (আবশ্যিক) হাইপারটেনশন এবং
2.গৌণ হাইপারটেনশন এ দুই শ্রেণীতে ভাগ করা হয়।           
উচ্চ রক্তচাপ একটি নীরব ঘাতক। অনেকের ক্ষেত্রে এই রোগ খুব সহজে ধরা পড়ে না আবার ধরা পড়ার পর এর সঠিক চিকিৎসা গ্রহণ না করলে ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণে না থাকলে তা অনেক রোগের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। পৃথিবীতে ২৫ বছরের উর্ধে জনসংখ্যার প্রায় শতকরা ৪০ ভাগ উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত। সারা বিশ্বে প্রতি বছর ১৭.৩ মিলিয়ন মানুষ উচ্চ রক্তচাপ অথবা উচ্চ রক্তচাপ সম্পর্কিত জটিলতায় মৃত্যু বরণ করেন।

সাধারনভাবে বলা হয়, যদি কোনও ব্যক্তির উভয় বাহুতে রক্তচাপ ১৪০/৯০ টর (টর চাপের একটি একক) অথবা এর উপরে থাকে, তাহলে সেটাকে উচ্চ রক্ত চাপ বলা যেতে পারে। আবার রক্তচাপ ১৩৯/৮৯ টর থেকে ১২০/৮০ টর হলে সেটাকে প্রিহাইপারটেনশন বলা হয়। প্রিহাইপারটেনশন কোন রোগ নয়, কিন্তু প্রিহাইপারটেনশন আছে এমন ব্যক্তির উচ্চড়ক্তচাপে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশী থাকে। আবার, ডায়াবেটিস অথবা কিডনী রোগীদের ক্ষেত্রে, ১৩০/৮০ টরের অধিক রক্তচাপ হলেই সাবধান হতে হবে এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে প্রয়োজনে চিকিৎসা শুরু করতে হবে।

উচ্চ রক্ত চাপের প্রকারভেদ

শ্রেণী

হৃদ-সংকোচন

চাপ

হৃদ-প্রসারণ

চাপ

কি করবেন?

mmHgkPammHg

kPa

সাধারণ

রক্তচাপ
বর্তমান লাইফস্টাইল অনুসরণ করুন অথবা সাস্থ্যকর লাইফস্টাইল গ্রহণ করুন।হাইপারটেনশন
যদি ১ মাসের মধ্যে ব্লাড প্রেসার স্বাভাবিক পর্যায়ে না আসে তবে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন।হাইপারটেনশন

পর্যায়-২

বর্তমান লাইফস্টাইল অনুসরণ করুন অথবা সাস্থ্যকর লাইফস্টাইল গ্রহণ করুন। ব্লাড প্রেসার স্বাভাবিক পর্যায়ে না আসলে অতি দ্রুত ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে চিকিৎসা গ্রহণ করুন।

উচ্চ রক্তচাপের লক্ষণ:-

1.অস্বস্তি বোধ করানিয়মিত বা অতিরিক্ত মাথা ব্যথাঘাড়ে ব্যথাচোখে ঝাপসা দেখা

2.অতিরিক্ত কাজের চাপ
3.অতিরিক্ত মদ্যপানউচ্চমাত্রার
4.উচ্চমাত্রার লবণের ব্যবহারের কারনে প্রায় শতকরা ৬০ ভাগ রোগী এই রোগে আক্রান্ত হন।
5.উত্তরাধিকার সূত্রে উচ্চ রক্তচাপ একটি স্বাভাবিক ঘটনা।
6.সাধারণত শতকরা ১০ ভাগ পর্যন্ত মহিলা গর্ভধারণের কারণে উচ্চ রক্তচাপের স্বীকার হন।
7.বৃক্কের উচ্চড়ক্তচাপ সাধারণত বৃক্কজনিত অসুস্থতার কারণে ঘটে থাকে।

কিভাবে বুঝবেন আপনি হাইপারটেনশনে আক্রান্ত?
সাধারনভাবে স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে বেশী রক্তচাপ হলেই ধরে নেয়া হয় সে হাইপারটেনশনে আক্রান্ত। স্বাধারণত এক সপ্তাহের বিরতিতে কমপক্ষে তিনবার মাপতে হবে। সঠিক

চাপ নির্ণয়ের জন্য কয়েকটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে যেমন-
1. দুশ্চিন্তামুক্ত অবস্থায় মাপতে হবে,
2. কমপক্ষে পাঁচ মিনিট সময় বসা অবস্থায় থাকতে হবে, 3.রক্তচাপ মাপার কমপক্ষে আধা ঘন্টা আগে থেকে ধূমপান থেকে বিরত থাকতে হবে,
4.মাদক গ্রহণের কমপক্ষে একঘন্টা পরে মাপতে হবে।

উচ্চ রক্তচাপের চিকিৎসা বা নিয়ন্ত্রনের উপায়
সাধারনভাবে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের রক্তচাপের জন্য
1. চিকিৎসকেরা ওজন কমানো
2. নিয়মিত ব্যায়ামকেই চিকিৎসার প্রথম ধাপ হিসেবে বিবেচনা করেন। এই পদ্ধতিগুলি রক্তচাপ কমানোর জন্য অত্যন্ত ফলপ্রসু, কিন্তু এগুলো সবাই ঠিকমতো মেনে চলতে পারেন না। বেশিরভাগ রোগীর ক্ষেত্রেই, মাঝারী থেকে উচ্চ রক্তচাপে যারা ভূগছেন, তারা অনির্দিষ্টকালের জন্য ঔষধের ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েন।

উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত রোগীর রক্তচাপ কমাতে নিম্নমাত্রায় লবণ, ফল, শাক সব্জি, স্নেহ বিহীন দুগ্ধজাত খাদ্য ও তেল কম খাওয়া ইত্যাদি অনেকটা সাহায্য করে।

ধূমপান ছেড়ে দেয়া সরাসরি রক্তচাপ না কমালেও, উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত রোগীর জন্য এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, কারণ এর ফলে উচ্চ রক্তচাপের বেশকিছু উপসর্গ যেমন- স্ট্রোক অথবা হার্ট-এটাক নিয়ন্ত্রণে আসে। উচ্চরক্তচাপ মৃদু হলে সেটা সাধারণত খাদ্য নিয়ন্ত্রণ, ব্যায়াম এবং শারিরীক সক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে নিয়ন্ত্রন করা যায়।

এছাড়াও, পরিবেশগত চাপ যেমন উঁচু মাত্রার শব্দ, অতিরিক্ত আলো বা ঘিঞ্চি পরিবেশ ইত্যাদি পরিহার করলেও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য সেটা খুব উপকারী হতে পারে।

অকারন দুশ্চিন্তা রক্ত চাপ বাড়ায় তাই জীবনের যে সকল ঘটনাবলী মানুষের নিয়ন্ত্রণের বাইরে তা নিয়ে অহেতুক দুশ্চিন্তা না করে যার যার ধর্ম মতে প্রার্থনায় মনোনিবেশ করলেই দুশ্চিন্তা কমে আসবে।

যাদের উচ্চ রক্ত চাপ আছে তাদের নিয়মিত রক্তচাপ মাপা এবং ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী সঠিক মাত্রার ঔষধ সেবন করা উচিত। অনেকে ঔষধ গ্রহনের পর রক্ত চাপ স্বাভাবিক হলেই হঠাৎ ঔষধ গ্রহণ বন্ধ করে দেয় যেটা কোনভাবেই উচিত নয়। এতে স্ট্রোকের ঝুঁকি শতকরা ২০ থেকে ৪০ ভাগ পর্যন্ত
View All Feed