Common Specialities
{{speciality.keyWord}}
Common Issues
{{issue.keyWord}}
Common Treatments
{{treatment.keyWord}}

অ্যালার্জি ঘটিত ব্রঙ্কাইটিসের হোমিওপ্যাথি প্রতিকার:

Written and reviewed by
Dr. Roopali Patil 90% (323 ratings)
BHMS
Homeopathy Doctor, Pune  •  18 years experience
অ্যালার্জি ঘটিত ব্রঙ্কাইটিসের হোমিওপ্যাথি প্রতিকার:

ব্রঙ্কাইটিস হলো ব্রঙ্কিয়াল টিউবগুলির আস্তরণের প্রদাহ যা আমাদের ফুসফুসে উপস্থিত। এই ধরণের এলার্জি, বিভিন্ন রকমের জ্বর, ব্যাকটেরিয়াল বা ভাইরাল সংক্রমণ বা এমনকি কিছু অন্যান্য অ্যালার্জির কারণে ও ঘটতে পারে। এই ধরণের প্রদাহের কারণে আমাদের শ্লৈষ্মিক ঝিল্লি জ্বলে যায়, এবং তার কারণে এটি ফুলে যায়। এই ফোলা ভাবটি আমাদের শ্বাস নালিতে বায়ুচলাচল সংকোচনের কারণ হতে পারে। এই সংকোচন শ্বাস নিতে ও ছাড়তে অসুবিধা করতে পারে। একই সময়ে, প্রদাহের কারণে, প্রচুর পরিমাণে শর্করাও শ্বাস নালিতে তৈরি হতে পারে। যার ফলে সংকীর্ণ বায়ুচলাচল এর জন্য ফুসফুসের মধ্যে সংগৃহীত শর্করা গুলিকে পরিষ্কার করতে সম্ভব হয় না।

ব্রঙ্কাইটিস দুটি ভিন্ন আকারের হতে পারে - হালকা এবং দীর্ঘস্থায়ী। দীর্ঘস্থায়ী ব্রঙ্কাইটিস যাদের আছে, তাদের ঋতু পরিবর্তনের সময় অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করতে হতে পারে এবং এতটাই সাবধান থাকতে হবে, যাতে, যখন তারা ঠান্ডা আবহাওয়া বা জিনিসের সম্মুখীন হয় তখন যেনতাদের ব্রঙ্কিয়াল টিউবগুলি ফেটেনা যায়। মাঝে মাঝে, ব্রঙ্কাইটিস শরীরের অ্যালার্জি প্রতিক্রিয়া গুলির কারণে ঘটে। এই ধরনের অ্যালার্জি বেশিরভাগ সময় পরাগ, ধুলো, রঙ এবং অন্যান্য অ্যালার্জিক পদার্থ থেকে গঠিত হতে পারে।

ব্রঙ্কাইটিসের লক্ষণ:

  • কাশি: সর্দি-কাশি এবং শর্করা উত্পাদন ব্রঙ্কাইটিসের দুটি সর্বাধিক লক্ষণ।
  • ব্রঙ্কিয়াল টিউবগুলির মধ্যে অতিরিক্ত শর্করা উৎপাদনের কারণে, কাশি প্রতিক্রিয়াটি শ্বসন কষ্ট থেকে পরিত্রাণ পেতে প্ররোচিত হয়। শ্লেষ্মাররঙ সাধারণত সাদা ধরণের হয়।
  • ব্রঙ্কাইটিসের রোগীরা শ্বাস কষ্টের শিকার হতে পারেন।
  • শ্বাস নেওয়ার সময় বুকের মধ্যে শীষ জাতীয় শব্দ হতে পারে এবং বুকের মধ্যে চাপ বা খুব ভারী কিছু চেপে বসে থাকার মতো অনুভূতি হতে পারে।
  • ব্যায়াম করা, সিঁড়ি চড়া, জোরে হাটা ইত্যাদিতে সমস্যা দেখা দিতে পারে কারণ এই সময় আমাদের ফুসফুস সঠিক পরিমানে অক্সিজেন সেবন করতে অসক্ষম হয়ে থাকে।
  • এই সব ক্ষেত্রে, অস্বস্তি থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য অনেক ধরণের চিকিৎসা করা যেতে পারে। যাইহোক, হোমিওপ্যাথি সেই সেরা চিকিৎসা গুলির মধ্যে একটি যা ব্রঙ্কাইটিস থেকে দ্রুত মুক্তি পেতে এবং এর থেকে দ্রুত সুস্থ হতে সাহায্য করবে।

ব্রঙ্কাইটিসের জন্য হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা:

ব্রঙ্কাইটিস চিকিৎসা করার সময়, হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা খুবই কার্যকর। এমনকি, এটিকেব্রঙ্কাইটিসের চিকিৎসার জন্য সবচেয়ে প্রতিশ্রূতিবদ্ধ চিকিৎসার মধ্যে একটি বলে ধরা হয়। হোমিওপ্যাথিক ওষুধগুলি ব্রঙ্কাইটিস থেকে পরিত্রাণ পেতে খুবইনির্ভরযোগ্য এবং নিরাপদ চিকিৎসা হিসাবে কাজ করে থাকে। এই চিকিৎসার কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। এটি প্রমাণিত, যে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার দ্বারা খুব সহজেই মুকুয়াস এ জমে থাকা সর্দি গুলিকে বের করা যেতে পারে। সঠিকভাবে নির্বাচিত হোমিওপ্যাথিক ওষুধগুলির সাহায্যে সর্দিকে সহজেই বের করে দেওয়া যায়, কাশি, বুকের ব্যথা এবং শ্বাস প্রশ্বাসে অসুবিধা হ্রাস করা যায় এবং কষ্ট প্রায় শেষ হতে শুরু করে। ব্রঙ্কাইটিস চিকিৎসার জন্য এখানে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি হোমিওপ্যাথিক ওষুধ সম্পর্কে নিচে বলা হয়েছে।

  1. আর্সেনিক অ্যালবাম: ব্রোঙ্কাইটিস, হালকা বা তীব্র, কিছু উপসর্গ প্রকাশ করে। যদি আপনি শ্বাস নেওয়ার সময় শীষের মতো শব্দ পাচ্ছেন, বিশেষ করে রাতের বেলা শ্লেষা বেড়ে যাচ্ছে, খুবই দুর্বল ও অস্থির অনুভব করছেন, সেক্ষেত্রে আর্সেনিক অ্যালবাম ওষুধটি আপনার জন্য খুবই ফলদায়ক. এই সময়ে আপনার খুব তেষ্টাও পেতে পারে কিন্তু এক সাথে আপনি খুব অল্প পরিমাণের জল বা তরল গ্রহণ করতে পারবেন। এই ধরণের লক্ষণ গুলি আপনার চিকিৎসককে এই ওষুধটি সেবন করার পরামর্শ দিতে যথেষ্ট।
  2. ব্রায়োনিয়া: ব্রঙ্কাইটিসের কারণে রোগীর যদি শুষ্ক শর্করা এবং শুষ্ক কাশি হয় তখন ব্রায়োনিয়া দেওয়া হয়। এই শুকনোতা, রোগীর শরীরের তরল সেবনের বৃদ্ধি করে। এটি লক্ষ্য করা হয়েছে যে কোনও উষ্ণ স্থান প্রবেশের সময়ে কাশি বেশি বাড়ে।
  3. পালসাটিলা : যখন কাশি দিনের বেলায় অপেক্ষাকৃত স্থিতিশীল কিন্তু সন্ধ্যায় ও রাতে কাশি যখন বাড়ে বা খারাপ হয় তখন এই ওষুধ টি নির্ধারণ করা হয়। রোগী সবুজ রং বা শোষিত সাদা শ্লেষ্মা নির্গমন করে থাকে এবং কষ্টের সময় অপেক্ষাকৃত বেশি তৃষ্ণার্ত হয়। এই ধরনের ব্রঙ্কাইটিস থাকার সময় রোগীর শুয়ে থাকা কঠিন হয়ে পড়ে কারণ এটি কেবল কাশিকে বাড়িয়ে তোলে, ফলে তাকে সর্বদা বসতে বাধ্য করে।
  4. অ্যান্টিম টার্ট: বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই শিশু ও বৃদ্ধদের ক্ষেত্রে এটি ব্যবহার করা হয়, বুকের ভেতর জমা সর্দি বা কাশি বের করতে হলে এই ঔষধটি সর্বোত্তম কাজ করে। এই ধরণের শুকনো কাশি কম করা খুবই কঠিন এবং এই ধরণের কষ্টের জন্য রোগীর ঘুমের সময় তাদের ডান পাশে ফিরে শান্তভাবে শুয়ে থাকা কঠিন হয় বলে প্রায়ই তারা অন্য পাশে পাল্টে ফিরে শুতে বাধ্য হয়।
  5. হেপার সালফার: যখন ঠান্ডা বাতাসের আবির্ভাবের ফলে কাশি বেশি করে হয়, তখন এটি হেপার সালফার এর দ্বারা নিয়ন্ত্রিত করতে ক্রমবর্ধমান ভাবে প্রয়োজনীয় হয়। এই ক্ষেত্রে সর্দি বা কাশি সকালের দিকে বেশি ক্রিয়াশীল হয়ে থাকে।

ব্রঙ্কাইটিস একটি সাধারণ বুকের সংক্রমণ এবং এই পরীক্ষিত হোমিওপ্যাথিক ওষুধগুলির সাথে খুব সহজে এর চিকিৎসা করা যেতে পারে। যাইহোক, আপনি কোন ঔষধ গ্রহণ করার আগে, ব্যক্তিগত ভাবে, যে কোনো রকম চিকিৎসার জন্য, বিশেষ হোমিওপ্যাথের সাথে পরামর্শ করে তারপরেই ওষুধ ব্যবহার করবেন।

3244 people found this helpful